January 16, 2020, 9:10 pm

১০০০ জন নেওয়া হবে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে

১০০০ জন নেওয়া হবে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীতে

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার নিরাপত্তা রক্ষা, ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তামূলক কাজ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, দারিদ্র্য বিমোচন, নারীর ক্ষমতায়ন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নিরাপত্তাসহ আর্থসামাজিক উন্নয়নে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে।সম্প্রতি এই বাহিনীতে ১ হাজার ব্যাটালিয়ন আনসারের শূন্য পদ পূরণের লক্ষ্যে অস্থায়ী ভিত্তিতে শুধু পুরুষ প্রার্থীদের বাছাই করা হবে বলে বিভিন্ন পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পাওয়া যাবে ১৯ অক্টোবরের প্রথম আলোর ১৩ পৃষ্ঠায়। আগ্রহী প্রার্থীদের প্রাথমিক বাছাই, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য উল্লেখিত জেলার রেঞ্জে নির্ধারিত তারিখ ও স্থানে উপস্থিত থাকতে হবে। আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, এসব পরীক্ষার তারিখ প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

আবেদনের যোগ্যতা
বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রার্থীদের কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে ন্যূনতম মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। বয়স হতে হবে ৩০.১১.২০১৮ তারিখে ১৮ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। শারীরিক যোগ্যতার ক্ষেত্রে সাধারণ ও অন্য প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি হতে হবে। বুকের মাপ ৩২-৩৪ ইঞ্চি, ওজন সাধারণ ও অন্য প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ৪৯.৮৯৫ কেজি এবং দৃষ্টিশক্তি লাগবে ৬/৬। ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা, ওজন ও বুকের মাপের ভিন্নতা রয়েছে। তবে কোনো দুরারোগ্য ব্যাধি থাকলে প্রার্থীকে প্রাথমিক বাছাইয়ে নির্বাচন করা হবে না। অধিক উচ্চতা, তালিকাভুক্ত আনসার ভিডিপি সদস্য ও ক্রীড়াক্ষেত্রে অসামান্য কৃতিত্বের অধিকারী প্রার্থীকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

আবেদন পদ্ধতি
প্রার্থীদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) অথবা যেকোনো অনলাইন-সুবিধাসম্পন্ন কম্পিউটার থেকে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ওয়েবসাইট (www.ansarvdp.gov.bd) এ ‘ব্যাটালিয়ন আনসার পদের জন্য আবেদন’ লিংকে ক্লিক করে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। ইতিমধ্যে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়ে গেছে। চলবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত।
অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ ২০০ টাকা আবেদন পোর্টালে প্রদর্শিত বিকাশ/রকেট/মোবিক্যাশ ইত্যাদির মাধ্যমে জমা দিতে হবে, যা অফেরতযোগ্য। রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে অনলাইন থেকে প্রবেশপত্রটি প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে এবং বাছাইয়ের সময় অবশ্যই তা প্রদর্শন করতে হবে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের নির্বাচন কমিটির কাছে শিক্ষাগত যোগ্যতার মূল/সাময়িক সনদের ফটোকপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, চারিত্রিক সনদের মূল কপি, নাগরিকত্ব সনদের মূল কপি, অভিভাবকের সম্মতিসূচক সনদ, অনলাইন রেজিস্ট্রেশনের প্রবেশপত্রের মূল কপি, পাসপোর্ট সাইজের ৬ কপি সত্যায়িত রঙিন ছবিসহ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হবে।

নির্বাচন পদ্ধতি
প্রার্থীদের প্রথমে প্রাথমিক বাছাই বা শারীরিক পরীক্ষার জন্য নির্দিষ্ট কেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে। শারীরিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের সনদ যাচাইয়ের পর লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, ‘সাধারণত প্রার্থীদের ৫০ নম্বরের লিখিত ও ১০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়। তবে এবার কত নম্বরের পরীক্ষা নেওয়া হবে, বিষয়টি এখনো প্রক্রিয়াধীন।
লিখিত পরীক্ষায় বিষয় থাকবে চারটি—বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান। মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা, আচরণ, নিজ জেলা, সাধারণ জ্ঞান ইত্যাদি বিষয়ে প্রশ্ন করা হবে।

প্রশিক্ষণ ও ভাতা
লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের ৬ মাস মেয়াদি মৌলিক প্রশিক্ষণের জন্য আনসার ভিডিপি একাডেমি, সফিপুর, গাজীপুরে যোগদান করতে হবে।
প্রশিক্ষণ শেষে অঙ্গীভূত আনসারদের দৈনিক সমতল এলাকার জন্য ৫১৬.৬৬ টাকা এবং পাহাড়ি এলাকার জন্য ৫৩৩.৩৩ টাকা ভাতা দেওয়া হবে। এ ছাড়া প্রতিবছর ১০ হাজার টাকা হারে ২টি উৎসব ভাতা দেওয়া হবে।

বিস্তারিত যোগাযোগ
এই নিয়োগসংক্রান্ত যেকোনো তথ্যের জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা আনসার-ভিডিপি কার্যালয়ে যোগাযোগ করতে পারেন। এ ছাড়া ভিজিট করতে পারেন www.ansarvdp.gov.bd এই ওয়েবসাইটে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017
Design & Developed BY ThemesBazar.Com